রাজশাহীতে করোনা শনাক্তের সংখ্যা ৫০০ ছাড়াল

  • 25
    Shares

নিজস্ব প্রতিবেদক:
দুটি ল্যাবে শনিবার (২৭ জুন) নতুন করে রাজশাহীর ৪৫ জন করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছে। ফলে শুধু রাজশাহী জেলা ও মহানগরেই আক্রান্তের সংখ্যা ৫০০ ছাড়িয়ে গেছে।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ল্যাবে ২৭ জনের নমুনায় করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। হাসপাতালের উপপরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, এ দিন তাদের ল্যাবে মোট ১৭২টি নমুনার রিপোর্ট হয়েছে। এর মধ্যে ২৭ জনের করোনা পজিটিভ এসেছে। তাদের সবার বাড়ি রাজশাহী। বিষয়টি সিভিল সার্জনকে জানানো হয়েছে।

শনাক্তরা হলেন- রামেক হাসপাতালের ডা. মোহন (২৫), ডা. সাকিব (২৪), ডা. সিদ্দিকা (২৫), সিনিয়র স্টাফ নার্স আমিনা (২৭), রেহেনা (৫০), দেলোয়ার (৫৭), রুনা লাইলা (৩০), হাসিবুল (৩৫), সামিমা (৩৭), সুমন (৩৫), ফারাহ (২০), নাসরিন (৬৬), সারোয়ার (৩৬), রোগী সাইদুল (৫৩)।

নগরীর ৪ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা মেহেরজান (৫৬), ২১ নম্বরের তৌসিফ মো. আমিন ফয়সাল (২৬), হাসিনা আক্তার (৫৪), ২৮ নম্বরের হানিফ (৫৫), রেজিয়া (৫২), শরীফুল (৩৯), পবার আমজাদ (৫৪), বাগমারার গৌরাঙ্গ (২২), সিরাজুল (৪৫), তাহের (২৮), শাহজাহান (২৯), বাঘার ইসতিয়াক (২৯) এবং চারঘাটের ওমর সানি (২৩)।

এদিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের ল্যাবেও ২৭ জনের নমুনায় করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। পরীক্ষা শেষে রামেকের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. বুলবুল হাসান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, এ দিন তাদের ল্যাবে মোট ১৮১টি নমুনার রিপোর্ট হয়েছে। এর মধ্যে ২৭টি করোনা পজিটিভ। এর মধ্যে ১৮টি নমুনা রাজশাহীর। এই ১৮ জনের মধ্যে ১৬ জনই আছেন রাজশাহী মহানগরীতে। আর অন্য দুইজনের বাড়ি জেলার তানোর উপজেলায়।

তানোরের দুইজন হলেন- ডা. শাপলা রানী (২৬) এবং শ্রীশান্ত মাহাতো (৪)। তানোরের দুইজন হলেন- ডা. শাপলা রানী (২৬) এবং স্রিতো মাহাতো (৪)। শাপলা তানোর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সুশান্ত কুমার মাহাতোর স্ত্রী। আর স্রিতো ছেলে। তানোরের ইউএনও’র করোনা ধরা পড়েছে আগেই। তিনি এখন চিকিৎসাধীন। এবার তার স্ত্রী-পূত্রের করোনা শনাক্ত হলো।

নগরীর আক্রান্তরা হলেন- মোশাররফ আলী (৩৬), মুক্তার হোসেন (৪৬), প্রেমা খান (২৫), সাদিয়া আফরিন সাবা (১৮), হাবিবুল্লাহ হক (৪৫), সালমা হক (৪৫), সীমা খান (৪৫)।

গোলাম কিবরিয়া (৫৪), আবদুল ওয়াহাব (৩৩), জিনিয়া আক্তার (১৯), জিয়াউর রহমান (৪০), কার্তিক রবিদাস (৩০), আতিয়া জাহান (৪০), আরমান চৌধুরী (৪৮), রামেক হাসপাতালের মীর মোহাম্মদ আলী (৪১) এবং আবুল হাসান (৩২)।

পজিটিভ বাকি ৯টি নমুনার মধ্যে তিনজন পাবনার বাসিন্দা। একজনের বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জ। আর বাকি পাঁচজনের বাড়ি নাটোর। এসব রোগীর করোনা পজিটিভ থাকার বিষয়টি সংশ্লিষ্ট জেলার সিভিল সার্জনকে জানানো হয়েছে বলেও জানান অধ্যাপক ডা. বুলবুল হাসান।

এদিকে নতুন ৪৫ জন শনাক্ত হওয়ায় রাজশাহীতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৫১৯ জনে দাঁড়াল। গত ১২ এপ্রিল জেলার পুঠিয়া উপজেলায় প্রথম করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হন।

নগরী করোনামুক্ত ছিল ১৫ মে পর্যন্ত। স্বাস্থ্য বিভাগের হিসাবে শুক্রবার পর্যন্ত রাজশাহীতে সাতজন মারা গেছেন। সুস্থ হয়েছেন ৬৮ জন।

রাজলাইভ/এইচ.এ


  • 25
    Shares