ট্রাম্পের নির্বাচন পেছানোর প্রস্তাব নাকচ করলেন রিপাবলিকান নেতারা

  • 1
    Share

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচন পিছিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব প্রত্যাখান করেছেন তার দল রিপাবলিকানের শীর্ষ নেতারা। জালিয়াতির শঙ্কায় নভেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচন পেছানো নিয়ে ট্রাম্পের ভাবনা নাকচ করে দিয়েছেন তারা।
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প

মার্কিন কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটের সংখ্যাগরিষ্ঠ দল অর্থাৎ রিপাবলিকান দলের নেতা মিচ ম্যাককোনেল এবং নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে সংখ্যালঘু দল রিপাবলিকানের নেতা কেভিন ম্যাককার্থি দুজনই এ প্রস্তাব প্রত্যাখান করেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন পেছানোর জন্য কংগ্রেসের অনুমোদন লাগবে ট্রাম্পের। তিনি চাইলেও নিজ ক্ষমতা বলে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন পেছাতে পারবেন না।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বিবিসি বলেছে, যুক্তরাষ্ট্রের আগামী নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন স্থগিতের চেষ্টা করতে পারেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মেইল-ইন ভোটিং নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করে গতকাল বৃহস্পতিবার ট্রাম্প নিজেই প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়ে লিখেছেন, ‘মানুষ যতদিন সঠিকভাবে, নিরাপদে এবং নিরাপত্তা নিয়ে ভোট দিতে না পারবে, ততদিন পিছিয়ে দিতে হবে?

ট্রাম্পের এই টুইটে খুব বেশি সমর্থন অবশ্য পড়েনি। অধিকাংশ টুইটার ব্যবহারকারী মনে করছেন, নির্বাচন যথাসময়ে হওয়া উচিত। করোনার এই সময়ে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য থেকে পোস্টাল বা ‘ডাক ভোটিংয়ের’ সুবিধা চাওয়া হচ্ছে। কিন্তু ট্রাম্প সেটি চান না। তিনি মনে করেন, মানুষ সরাসরি ভোট দিতে না পারলে সেই ভোট ‘জালিয়াতির’ ভোট হবে।

বিবিসি জানিয়েছে, কংগ্রেসের দুটি কক্ষে ট্রাম্পের সরাসরি কোনো প্রভাব নেই। ট্রাম্প তার টুইটে বলেছেন, ‘এভাবে ভোট হলে সেটি হবে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় ভুলের এবং প্রতারণার নির্বাচন।’

করোনা মহামারি পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যগত দিকটি বিবেচনায় রেখে মেইলের মাধ্যমে এবারের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোট নেওয়ার কথা রয়েছে। ট্রাম্প এমন সময় নির্বাচন পেছানোর প্রস্তাব দিলেন যখন যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতি ১৯৩০ সালের মহামন্দার পর সবচেয়ে খারাপ অবস্থায় রয়েছে।

এএইচএস.


  • 1
    Share