চাপের মুখে ই-সিগারেটের বিজ্ঞাপন প্রত্যাহার করলো গ্রামীণফোন

  • 30
    Shares

নিজস্ব প্রতিবেদক:

উন্নয়ন ও মানবাধিকার সংস্থা ‘এ্যাসোসিয়েশন ফর কম্যুনিটি ডেভেলপমেন্ট-এসিডি’সহ দেশের তামাকবিরোধী বিভিন্ন সংস্থা ও সংগঠনের চাপের মুখে শেষ পর্যন্ত অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজ থেকে ক্ষতিকর ই-সিগারেটের বিজ্ঞাপন প্রত্যাহার করে নিয়েছে গ্রামীণফোন। গত রবিবার (১২ এপ্রিল) কোন এক সময় গ্রামীণফোন তাদের এই ই-সিগারেটের বিজ্ঞাপন প্রত্যাহার করে নেয়।
প্রত্যাহার করে নেয়া ই-সিগারেটের বিজ্ঞাপন

গণমাধ্যমকে ধন্যবাদ জানিয়ে সোমবার (১৩ এপ্রিল) এসিডির তামাক নিয়ন্ত্রণ প্রকল্প থেকে পাঠানো এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে গ্রামীণফোনের ই-সিগারেটের বিজ্ঞাপন প্রত্যাহারের এই বিষয়টি জানানো হয়।

এর আগে গত ১০ এপ্রিল সন্ধ্যায় করোনা ভাইরাস নিয়ে জনগণকে সতর্ক করার নামে মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোন তাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজে ই-সিগারেটের পক্ষে একটি পোস্ট দেয়। যেখানে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নাম-লোগো ব্যবহার করা হয়েছিল। মানুষের জীবন ও স্বাস্থ্যহানিকর ইলেক্ট্রনিক গ্রামীণফোনের এমন অপ্রপ্রচারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে গত শনিবার (১১ এপ্রিল) এসিডিসহ তামাকবিরোধী প্রায় ২০টি সংগঠন দেশের গণমাধ্যমগুলোতে প্রেসবিজ্ঞপ্তি পাঠায়।

এসব প্রেসবিজ্ঞপ্তি দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রচার ও প্রকাশ হলে গ্রামীণফোনের এমন স্বাস্থ্যহানিকর কর্মকাণ্ড নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ অনলাইনে তীব্র সমালোচনার ঝড় ওঠে। এমন সমালোচনা ও অব্যাহত চাপের মুখে শেষ পর্যন্ত গ্রামীণফোন তাদের অফিসিয়াল পেইজ থেকে জীবন ও স্বাস্থ্যহানিকর এই ইলেক্ট্রনিক সিগারেটের বিজ্ঞাপন অসপারণ করে।

উল্লেখ্য, এই ই-সিগারেট মানুষের স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। যাতে তামাকসহ ক্ষতিকর নিকোটিন ও রাসায়নিক পদার্থ রয়েছে। এই ই-সিগারেট সেবন করে পৃথিবীতে তাৎক্ষণিক মৃত্যুর ঘটনাও ঘটেছে অহরহ। ফলে ই-সিগারেটের ক্ষতির ভয়াবহ দিক বিবেচনায় নিয়ে পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতসহ বিশ্বের প্রায় ২৩টি দেশে এটি নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

অথচ দেশের জনপ্রিয় মোবাইল অপারেটর গ্রামীণফোন তাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজে প্রাণহানিকর ই-সিগারেটের বিজ্ঞাপন প্রচার করেছিল। যা অত্যন্ত দুঃখজনক। পোস্টে গ্রামীণফোন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডঐঙ) এর নাম ও লোগো ব্যবহার করে কৌশলে লিখেছিল যে, ‘কোভিড-১৯ কি বাতাসে ছড়ায় (যেমন- এয়ার কন্ডিশন বা ই-সিগারেটের মাধ্যমে?)’ যা ই-সিগারেটের পক্ষে গ্রামীণফোনের কৌশলী বিজ্ঞাপন ছিল।

এএইচএস.


  • 30
    Shares