ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালের ফার্মেসিকে জরিমানা ১০ লাখ

  • 1
    Share

নিউজ ডেস্ক:

ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের অনুমোদনহীন অপারেশন থিয়েটারে ব্যবহৃত ইনজেকশন ও সার্জিক্যাল পণ্য রাখার দায়ে মতিঝিলে ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালের ফার্মেসীকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করেছে র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

রোববার (২৭ জুন) বেলা ১২টা থেকে ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে ভুয়া চিকিৎসক ও হাসপাতালে অনিয়মের খোঁজে ভ্রাম্যমাণ আদালত শুরু করেন র‍্যাব-৩ এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ বসু।

এসময় ইউনানির সনদ নিয়ে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের মতো অ্যালোপ্যাথিক চিকিৎসা দেওয়ার দায়ে ভুয়া ডাক্তার মিজানুর রহমানকে দুই বছরের কারাদণ্ড দেন পলাশ বসুর ভ্রাম্যমাণ আদালত।

একই সময় হাসপাতালের বিভিন্ন অনিয়মের কারণে সহকারী সুপার হাসিনুর রফমানকে চার লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। পরে ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালের ফার্মেসিতে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সেখানে ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন রেজিস্ট্রেশন বা ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের অনুমোদনহীন অপারেশন থিয়েটারে ব্যবহৃত ইনজেকশন ও সার্জিক্যাল পণ্য পাওয়ায় ফার্মেসির শফিউল ইসলাম ও আব্দুল জলিলকে পাঁচ লাখ টাকা করে মোট ১০ লাখ টাকা জরিমানা; অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।


  • 1
    Share